শিরোনাম
বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৩ পূর্বাহ্ন

করোনা: ভ্যাকসিন আসার আগেই মরবে ২০ লাখ মানুষ-ডব্লিউএইচও।

রিপোটারের নাম / ১৬৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) ভ্যাকসিন হাতের নাগালে আসার আগেই সারাবিশ্বে ২০ লাখ মানুষ মারা যাবে। এমনটাই শঙ্কা প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। আর আন্তর্জাতিকভাবে পদক্ষেপ না নেয়া হলে এই সংখ্যা আরো বেশি হতে পারে বলে ধারণা সংস্থাটির।

ডব্লিউএইচও’র জরুরি কার্যক্রম বিষয়ক প্রধান মাইক রায়ান এই সতর্কবাণী উচ্চারণ করেন। এমন খবর প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাদ্যম বিবিসি।

এ বিষয়ে মাইক রায়ান বলেন, আন্তর্জাতিকভাবে পদক্ষেপ না নেয়া না হলে এই মৃত্যুর সংখ্যা আরো বেশি হতে পারে।

তিনি আরো বলেন, বিশাল অঞ্চলজুড়ে উদ্বেগজনক হারে ভাইরাসটির সংক্রমণ বাড়ছে। তাই স্বাস্থবিধি মেনে চলা ও সামাজিক দূরত্ব বজার রাখার ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন ডব্লিউএইচও’র এই কর্মকর্তা।

এদিকে ওয়ার্ল্ডোমিটার’র তথ্য মতে, আজ ২৬ সেপ্টেম্বর, শনিবার সকাল সোয়া ৮টা পর্যন্ত সারা পৃথিবীতে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৩ কোটি ২৭ লাখ ৫৮ হাজার ৩৪০ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে ৯ লাখ ৯৩ হাজার ৪১৩ জন ইতোমধ্যে মারা গেছেন। বিপরীতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ কোটি ৪১ লাখ ৭১ হাজার ৮৭৭ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৭৫ লাখ ৯৩ হাজার ৫০ জন করোনারোগী, যাদের মধ্যে ৬৩ হাজার ৭৮৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত পৃথিবীর সর্বোচ্চসংখ্যক মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ সংখ্যা বেড়ে ৭২ লাখ ৪৪ হাজার ১৮৪ জনে দাঁড়িয়েছে। ভারতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৯ লাখ ১ হাজার ৫৭১ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। ব্রাজিলে তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪৬ লাখ ৯২ হাজার ৫৭৯ জন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া রাশিয়ায় চতুর্থ সর্বোচ্চ ১১ লাখ ৩৬ হাজার ৪৮ জন ও কলম্বিয়ায় পঞ্চম সর্বোচ্চ ৭ লাখ ৯৮ হাজার ৩১৭ জনের কোভিড-১৯ ধরা পড়েছে।

শীর্ষ দশে থাকা অন্য দেশগুলো হলো— পেরু (৭ লাখ ৯৪ হাজার ৫৮৪ জন), স্পেন (৭ লাখ ৩৫ হাজার ১৯৮ জন),  মেক্সিকো (৭ লাখ ২০ হাজার ৮৫৮ জন), আর্জেন্টিনা (৬ লাখ ৯১ হাজার ২৩৫ জন) ও দক্ষিণ আফ্রিকা (৬ লাখ ৬৮ হাজার ৫২৯ জন)।

কোভিড-১৯ মহামারীর প্রাণহানিতেও শীর্ষে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ৮ হাজার ৪৪০ জনে দাঁড়িয়েছে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ লাখ ৪০ হাজার ৭০৯ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে ব্রাজিলে। ভারতে মারা গেছেন তৃতীয় সর্বোচ্চ ৯৩ হাজার ৪১০ জন। এছাড়া মেক্সিকোতে চতুর্থ সর্বোচ্চ ৭৫ হাজার ৮৪৪ জন ও যুক্তরাজ্যে পঞ্চম সর্বোচ্চ ৪১ হাজার ৯৩৬ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

এ হিসেবে শীর্ষ দশে রয়েছে— ইতালি (মৃত্যু ৩৫ হাজার ৮০১ জন), পেরু (মৃত্যু ৩২ হাজার ৩৭ জন), ফ্রান্স (মৃত্যু ৩১ হাজার ৬৬১ জন), স্পেন (মৃত্যু ৩১ হাজার ২৩২ জন) ও ইরান (মৃত্যু ২৫ হাজার ২২২ জন)।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে বিশ্বব্যাপী ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে। এখন পর্যন্ত ১৮৮টি দেশে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এই প্রেক্ষাপটে গত ১১ মার্চ বিশ্বব্যাপী মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

আমেরিকার দুই মহাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ায় সংক্রমণ এখনও দ্রুত বাড়ছে। অন্যদিকে ইউরোপকে লন্ডভন্ড করে দিয়ে করোনা কিছুটা স্তিমিত হলেও সেখানে আবারও নতুন করে রোগটির প্রাদুর্ভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে।

করোনাভাইরাস বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ২৪ লাখ ৭২ হাজার ছাড়িয়েছে। আর এ মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৯ লাখ ৮৭ হাজার।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ২ লাখ ৩ হাজার ৭৪৬ জন। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যাও বিশ্বে সর্বোচ্চ, ৭০ লাখ ৩২ হাজার ৫৯৫ জন।

আর আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় ও মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৫৮ লাখ ১৮ হাজার ৫৭০ জন। এ পর্যন্ত মারা গেছে ৯২ হাজার ২৯০ জন।

মৃত্যুর দিক থেকে দ্বিতীয় ও আক্রান্তের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত এক লাখ ৪০ হাজার ৫৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬ লাখ ৮৯ হাজার ৬১৩ জন।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

আমাদের পরিবার

প্রকাশনা সম্পাদক :আব্দুছ ছালাম সবুজ প্রধান সম্পাদক:মোহাম্মদ আজাহারুল হক সম্পাদক:এস, এম, মোমতাজ উদ্দিন যুগ্ম সম্পাদক :রোবেল মাহমুদ বার্তা সম্পাদক:ফরিদুল আলম সজীব মফস্বল সম্পাদক:সারুয়ার ফরাজী নির্বাহী সম্পাদক:আনিন চিপ রিপোটার:লিয়াকত আলী